অ্যান্ডারসনের ইতিহাসের পর পাকিস্তানের স্বস্তির ড্র

ইতিহাস গড়লেন জিমি অ্যান্ডারসন। আন্তর্জাতিক অঙ্গনে প্রথম পেসার হিসেবে ৬০০ টেস্ট উইকেট নেয়ার মাইলফলক ছুঁলেন এই ইংলিশ পেসার। মঙ্গলবার সাউদাম্পটনে সিরিজের তৃতীয় টেস্টের পঞ্চম দিনে পাকিস্তানি অধিনায়ক আজহার আলীর উইকেট নিয়ে ৬০০-এর ক্লাবে পৌঁছান অ্যান্ডারসন। টেস্টে তার চেয়ে বেশি উইকেট আছে তিনজনের- ভারতের অনীল কুম্বলে (৬১৯), অস্ট্রেলিয়ার শেন ওয়ার্ন (৭০৮) ও শ্রীলঙ্কার মুত্তিয়া মুরালিধরনের (৮০০)। অ্যান্ডারসন কীর্তির পর দিনের খেলা ১ ঘণ্টা বাকি থাকতে ড্র মেনে নেয় দুই দল। তাতে তিন ম্যাচ সিরিজ ১-০ ব্যবধানে জিতে নিল ইংল্যান্ড। পুরো ৫ দিন খেলা হলে তৃতীয় টেস্ট হয়তোবা জিততো ইংল্যান্ড। ৮ উইকেটে ৫৮৩ রানে প্রথম ইনিংস ঘোষণার পর তৃতীয় দিনে পাকিস্তানকে তারা অল আউট করে দেয় ২৭৩ রানে। কিন্তু এরপরই বৃষ্টির দাপট। ফলোঅনে পড়ে ব্যাটিংয়ে নামা পাকিস্তানও বেঁচে গেল। তবে আবিদ আলীরা ধৈর্যের পরিচয় দিয়েছেন। ৫৬ ওভার ব্যাট করে ১০০/২ নিয়ে তৃতীয় দিনের খেলা শেষ করে তারা।

সাউদাম্পটনে বৃষ্টির দাপট ছিল ম্যাচের পঞ্চম দিনেও। দুই সেশন চলে যায় বৃষ্টির পেটে। অ্যান্ডারসনের অপেক্ষা বাড়ছিল। অবশেষে মাঠ খেলার উপযোগী হলে ব্যাটিংয়ে নামে পাকিস্তান। ৯ রান যোগ করতেই অ্যান্ডারসনের ৬০০তম শিকার হয়ে ফেরেন পাক অধিনায়ক আজহার (৩১)। তবে চতুর্থ উইকেটে বাবর আজম-আসাদ শফিকের ৬৩ রানের জুটিতে ম্যাচটা ড্রয়ের পথে নিয়ে যায় পাকিস্তান। দলীয় ১৭২ রানে জো রুটের বলে আউট হন শফিক (২১)। এর ৩.৩ ওভার পর ম্যাচ ড্র মেনে নেয় দুই দল। দ্বিতীয় ইনিংসে পাকিস্তানের সংগ্রহ ১৮৭/৪। বাবর আজম ৯২ বলে ৮ চারে ৬৩ ও ফাওয়াদ আলম ৯ বলে ০ রানে অপরাজিত থাকেন।

image_pdfপিডিএফ করুনimage_printপ্রিন্ট করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *