দেশে প্রথম গ্লোবাল অল-নেটওয়ার্ক কিউআর চালু সিটি ব্যাংকের

ঢাকা টেলিগ্রাফ শেয়ারবাজার: একটি কিউআর কোডে চারটি পেমেন্ট স্কিমসহ আন্তঃব্যবহারযোগ্য কিউআর ভিত্তিক পেমেন্ট সলিউশন চালু করেছে সিটি ব্যাংক। আমেরিকান এক্সপ্রেস, ইউনিয়নপে, মাস্টারকার্ড এবং ভিসা – একটি মাত্র কিউআর কোড ব্যবহার করে এই চারটি নেটওয়ার্ক সেবার কার্ডধারীরা অর্থ প্রদান করতে পারবেন। বর্তমানে দেশের ক্রেডিট কার্ড ব্যবহারকারীর ৩৫% সিটি ব্যাংকের গ্রাহক।

এই সেবাটি চালু করার মাধ্যমে সিটি ব্যাংক বাংলাদেশের কোনো ব্যাংক হিসেবে প্রথম তিন নির্দিষ্ট সুবিধাসম্বলিত আন্তঃব্যবহারযোগ্য কিউআর চালু করল। প্রথমত, গ্রাহকদের বিভিন্ন পেমেন্ট নেটওয়ার্কে আর পৃথক কিউআর কোড স্ক্যান করতে হবে না। দ্বিতীয়ত, ব্যবসায়ীদের কেবল দোকানে বা ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে একটি করে কিউআর কোড প্রদর্শন করতে হবে, যাতে করে দোকানের সামনে অনেক কিউআর স্টিকারে ভিড় এড়ানো যাবে। তৃতীয়ত, সিটি ব্যাংকের কিউআর কোডটি বৈদেশিক আন্তঃযোগাযোগযোগ্য সমাধান হিসেবে অন্যান্য দেশ থেকে বাংলাদেশে আসা ভ্রমণকারী গ্রাহকেরা স্ক্যান করতে পারবেন।

কিউআর কোড ভিত্তিক এই পেমেন্ট সলিউশনটি ব্যবহার করতে গ্রাহকদের সিটি ব্যাংকের মোবাইল ব্যাংকিং অ্যাপ ‘সিটিটাচ’ ডাউনলোড করতে হবে এবং সেখানে প্রদর্শিত কিউআর কোডটি স্ক্যান করে অর্থ প্রদান করার জন্য তাদের যে কোনো ক্রেডিট, ডেবিট বা প্রিপেইড কার্ড ডিফল্ট পেমেন্ট হিসেবে সেট করতে হবে। এই মহামারী চলাকালীন সময়ে নগদ অর্থ প্রদানের একাধিক স্কিমের সঙ্গে এই সেবাটি স্মার্ট ফোন ব্যবহারকারীদের কাছে দ্রুত গ্রহণযোগ্য হয়ে উঠবে।
সিটি ব্যাংক সত্যিকার অর্থে বিশ্বাস করে যে একটি আন্তঃব্যবহারযোগ্য কিউআর প্ল্যাটফর্ম নগদ ক্যাশ লেনদেনবিহীন ডিজিটাল সমাজ গঠনে বাংলাদেশের অগ্রযাত্রার পথকে প্রশস্ত করার ক্ষেত্রে একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।
সেবাটি চালু উপলক্ষে সিটি ব্যাংকের এমডি ও সিইও মাসরুর আরেফিন বলেন, ‘এটি আমাদের সবার জন্য এক স্মরণীয় মুহূর্ত। আমাদের এই কিউআর পেমেন্ট সলিউশন আন্তঃব্যবহারযোগ্যতার একটি উদাহরণ যা বাংলাদেশ ব্যাংকের সুদূঢ়প্রসারী দৃষ্টিভঙ্গির সঙ্গেও জড়িত। এটি দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে পৌঁছে দিয়ে বিস্তৃত ডিজিটাল পেমেন্ট ইকোসিস্টেম গড়ে তোলার দিকে এগিয়ে যাওয়ার এক ধাপ।’

‘বাংলা কিউআর’ উদ্বোধনের বিষয়ে আমেরিকান এক্সপ্রেসের গ্লোবাল নেটওয়ার্ক সার্ভিসেস বিষয়ক দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের ভাইস প্রেসিডেন্ট দিব্যা জৈন বলেন, ‘আমরা বাংলাদেশে সিটি ব্যাংক-আমেরিকান এক্সপ্রেস’ আন্তঃব্যবহারযোগ্য কিউআর পেমেন্টস সলিউশন চালু করতে পেরে আনন্দিত। ই-পেমেন্ট প্রদানের ক্ষেত্রে বাংলাদেশে কাজ করার অনেক সম্ভাবনা রয়েছে এবং আমেরিকান এক্সপ্রেস এই বৃদ্ধিকে তরান্বিত করতে বাজারে নতুন, উদ্ভাবনী অর্থ আদান-প্রদানের মাধ্যম চালু করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।’

ভিসা’র ভারত ও দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের মার্চেন্ট সেলস অ্যান্ড অ্যাকুয়ারিং বিভাগের প্রধান শৈলেশ পল বলেন, ‘আমরা সিটি ব্যাংকের কিউআর প্রদানের সার্থকতা অর্জনে গর্বিত। এটি একটি স্বল্প ব্যয়ে আর্থিক লেনদেনের মাধ্যম যা ডিজিটাল পেমেন্টগুলোকে বাংলাদেশে আরও ব্যাপকভাবে উপলব্ধ হতে সহায়তা করবে। গ্রাহকেরা যেহেতু তাদের প্রতিদিনের লেনদেনে স্বল্প-স্পর্শে অর্থ প্রদান শুরু করেছে, আমরা আশা করি, কিউআর ভিত্তিক অর্থ প্রদানের প্ল্যাটফর্মগুলো ব্যবসায়ীক লেনদেনে যথেষ্ট গ্রহণযোগ্যতা দেখবে।’

ইউনিয়নপে ইন্টারন্যাশনাল এর দক্ষিণ এশিয়া শাখার মহাব্যবস্থাপক আশুতোষ আগরওয়াল বলেন, ‘ইউনিয়নপে কিউআর কোড পেমেন্ট-এ রয়েছে ইএমভি স্পেসিফিকেশন সেটি বাংলাদেশের ইউনিফাইড কিউআর কোড মানের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ। ৪১টি দেশ ও অঞ্চলে প্রায় ৩০ মিলিয়ন ব্যাবসায়ী আমাদের এই কিউআর কোড ভিত্তিক পেমেন্ট সলিউশনটি ব্যবহার করছে।’

মাস্টারকার্ডের কান্ট্রি ম্যানেজার-বাংলাদেশ সৈয়দ মোহাম্মদ কামাল বলেন, ‘দেশের আন্তঃব্যবহারযোগ্য জাতীয় কিউআর কোড ভিত্তিক গ্রহণযোগ্য পেমেন্ট সলিউশিন ‘বাংলা কিউআর’ চালুর উদ্যোগে সিটি ব্যাংকের সঙ্গে যুক্ত হতে পেরে আনন্দিত। দেশের মফস্বল ও গ্রামীণ অঞ্চলে বাংলা কিউআর অধিগ্রহণের বিষয়ে দৃষ্টি নিবদ্ধ রেখে এখন সিটি ব্যাংকের এই প্রচেষ্টা প্রসারিত হচ্ছে।’

image_pdfপিডিএফ করুনimage_printপ্রিন্ট করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *