৩ দিনে নদী গর্ভে বিলীন ১৫০ মিটার

সিরাজগঞ্জের তাঁত শিল্পসমৃদ্ধ এনায়েতপুরের বেতিল স্পার বাঁধে আবারো ৮০ মিটার এলাকা বিলীন হয়েছে। যমুনা নদীতে প্রচণ্ড স্রোতে বুধবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে গত তিন দিনে স্পারের মাটির স্যাংঙ্কে প্রায় ১৫০ মিটার এলাকা নদী গর্ভে চলে গেল। এতে এলাকা জুড়ে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।

পাউবো ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, এনায়েতপুর থানার উত্তরাঞ্চল যমুনার ভাঙ্গন থেকে রক্ষায় ১৯৯৯-২০০০ অর্থ বছরে প্রায় ২১ কোটি টাকা ব্যায়ে পাউবোর তত্বাবধানে বেতিল স্পার-১ নির্মাণ করা হয়। প্রতি বছরই যমুনায় পানি বৃদ্ধি ও কমার সময় স্পার এলাকা ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে ওঠে। বিশেষ করে গত প্রায় এক সপ্তাহ ধরে যমুনার পানি কিছু কমতে থাকায় নদীতে প্রচণ্ড স্রোতে ঘুর্ণাবর্তের সৃষ্টি হয়। বুধবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে তীব্র স্রোতে আকস্মিকভাবে স্পারের স্ট্রাকচারের প্রায় ২০ মিটার পশ্চিমে মাটির স্যাংকে ভয়াবহ ভাঙ্গনে প্রায় ৮০ মিটার বিলীন হয়ে যায়। এছাড়া গত সোমবার সকালে একই স্থানের পশ্চিমে আর ৭০ মিটার এলাকা ধসে যায়। এ নিয়ে গত তিন দিনের ব্যবধানে ১৫০ মিটার এলাকা নদী গর্ভে চলে গেছে।

এ বিষয়ে স্থানীয় ব্যবসায়ী আলমগীর হোসেন জানান, স্পার বাঁধের কারণে আজগড়া-বেতিল এলাকার হাজার হাজার ঘরবাড়ি ও বহু তাঁত কারখানা সহ নব প্রতিষ্ঠিত সিরাজগঞ্জ ভেটেরিনারী কলেজ ও মৎস্য ডিপ্লোমা ইন্সটিটিউড গড়ে উঠে। তবে এ বছর একের পর এক স্পারে ভাঙ্গন দেখা দেয়ায় হুমকিতে পড়ে চরম আতঙ্কে মুখে পড়েছি।

এ ব্যাপারে সিরাজগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী নাসির উদ্দিন জানান, নদীতে প্রচণ্ড স্রোত ও স্কাউরিংয়ের ফলে মাটির স্যাংঙ্কের ৮০ মিটার এলাকায় বিলীন হয়েছে। এর আগেও ধসে যাওয়া ৭০ মিটার এলাকায় জিও ব্যাগ ডাম্পিং চলমান রয়েছে। আশা করছি দ্রুতই ভাঙ্গন মুক্ত করা হবে।

image_pdfপিডিএফ করুনimage_printপ্রিন্ট করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *